নতুন বছরের প্রথম দিনই প্রস্তুতি শুরু ঢাকা, সিলেট ও রাজশাহীর

জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেষ। নির্বাচনী উত্তাপও প্রায় স্তিমিত। আর পাশাপাশি নির্বাচন শেষ হবার পর পরই বেজে উঠেছে বিপিএলের ডংকা। গত ২৪ ঘন্টায় ভোজ বাজির মত বদলে গেছে প্রেক্ষাপট।

 

আগের দিন মানে ৩০ ডিসেম্বর রাত পর্যন্ত সবার দৃষ্টি ছিল সংসদ নির্বাচনের দিকে। ভোট গণনা শেষ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নিরংকুশ বিজয়ে ঘটেছে। যারা এক মাসের বেশী সময় ধরে ব্যতিব্যস্ত ছিলেন জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে, ক্রিকেটাঙ্গনের সেই পরিচিত মুখগুলো আবার ফিরে আসতে শুরু করেছেন ক্রিকেটাঙ্গনে।

ক্রিকেট পাড়া আবার বিপিএলকে কেন্দ্র করে যারপরনাই সরব হবার পথে। ফ্র্যাঞ্চাইজি এবং টিম ম্যানেজমেন্টে প্রানচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। এমনিতেই প্রস্তুতি শুরু করতে দেরি হয়ে গেছে। আসর শুরুর বাকি আছে মাত্র চার দিন। তাই সব দল তৎপর যত শীঘ্র সম্ভব অনুশীলন শুরু করতে।

গতকাল জাগোনিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল গড়পড়তা ২ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে দলগুলোর প্রস্তুতি। সেটা ঠিকই আছে। তবে ভিতরের খবর, কোন কোন দলের বিদেশী কোচ ও ক্রিকেটারসহ পুরোদস্তুর প্রস্তুতি শুরু করতে হয়ত আরও একদিন বেশী লাগতে পারে।

তবে এখনকার খবর সাত দলের সবাই না হলেও কোন কোন দল নতুন বছরের প্রথমদিন থেকেই বিপিএল প্রস্তুতি শুরু করতে যাচ্ছে। সেটা শুধুই স্থানীয় ক্রিকেটারদের দিয়ে।

আজ রাত পর্যন্ত একজন বিদেশী ক্রিকেটারও আসছেন না। বেশীর ভাগ ফরেন ক্রিকেটার ও কোচই ২ জানুয়ারি রাজধানীতে এসে পৌঁছবেন। তাই ২০১৯ সালের প্রথম দিন শেরে বাংলা স্টেডিয়ামের পাশের একাডেমি মাঠে গতবারের ফাইনালিস্ট ঢাকা ডায়নামাইটস, সিলেট সিক্সার্স, রাজশাহী কিংস অনুশীলন করবে। এছাড়া কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের শীর্ষ তারকা ও অধিনায়ক তামিম ইকবালও কাল থেকেই প্র্যাকটিস শুরু করবেন ।

এদিকে এবারের বিপিএলে যে চার বিদেশী কোচ টম মুডি, মাহেলা জয়বর্ধনে, ওয়াকার ইউনুস আর ল্যান্স ক্লুজনার যথাক্রমে রংপুর রাইডার্স, খুলনা টাইটান্স, সিলেট সিক্সার্স ও রাজশাহী কিংসের হেড কোচের দায়িত্ব পালন করবেন। চার দলের অফিসিয়ালরা নিশ্চিত করেছেন তারা সবাই ২ জানুয়ারির মধ্যে এসে রাজধানীতে পৌঁছবেন।

এছাড়া ঢাকা ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হেড কোচ হিসেবে থাকবেন খালেদ মাহমুদ সুজন ও মোহাম্মদ সালাউদ্দীন। চিটাগাং ভাইকিংসের গতবারের কোচ নুরুল আবেদিন নোবেল এবারও দলের সাথে আছেন। থাকবেনও। তবে প্রধান কোচের ভুমিকায় থাকবেন কি-না? তা নিশ্চিত নয়।

দলটির প্রধান টেকনিক্যাল এডভাইজার মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানিয়েছেন, চিটাগাং ভাইকিংস হেড কোচ হিসেবে, বিসিবি হাই পারফরমেন্স ইউনিটের হেড কোচ হেলমোকে পেতে চাচ্ছে। তার সাথে কথা বার্তা চলছে। আজ কালের মধ্যেই তা চূড়ান্ত হয়ে যাবে- এমন বিশ্বাস নান্নুর।

এদিকে খুলনা টাইটানসের মিডিয়া ম্যানেজার মিনহাজউদ্দীন আহমেদ নিশ্চিত করেছেন খুলনার কোচ মাহেলা জয়বর্ধনে রাজধানীতে এসে পৌঁছবে আগামী ২ জানুয়ারি।

তবে আগামীকাল থেকে শুরু হয়ে যাবে খুলনার বিদেশী ক্রিকেটারদের আসা। পুরো দল এক সাথে নিয়ে খুলনার অনুশীলন শুরু ৩ জানুয়ারি। তবে তার আগে কাল বছরের প্রথম দিন প্র্যাকটিস করবেন খুলনার স্থানীয় ক্রিকেটাররা।

অন্যদিকে সিলেট সিক্সার্সের মিডিয়া ম্যানেজার তামজিদুল ইসলাম কাকন জাগো নিউজকে জানিয়েছেন তাদের হেড কোচ ওয়াকার ইউনুস ঢাকা আসবেন ২ জানুয়ারি। তবে স্থানীয় পর্যায়ের ক্রিকেটাররা আগামীকাল থেকেই অনুশীলনে নেমে পড়বেন।

চট্টগ্রামেরও একই অবস্থা। ভাইকিংসের স্থানীয় ক্রিকেটারদের অনুশীলন শুরু ২ জানুয়ারি।

রাজশাহীর মিডিয়া ম্যানেজার অম্লান আহমেদ জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় ক্রিকেটাররা আগেভাগে মানে ১ জানুয়ারি প্র্যাকটিস শুরু করলেও মূল প্র্যাকটিস শুরু হবে ৩ জানুয়ারি। তার আগে ২ জানুয়ারি রাতের মধ্যেই হেড কোচ ল্যান্স ক্লুজনার ও বিদেশী ক্রিকেটারদের চলে আসার কথা।

খবরটি শেয়ার করুন...
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Print this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি