সংরক্ষিত নারী এমপির দৌড়ে মর্জিনা পারভীনের সম্ভাবনা

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজশাহী জেলা মহিলা আওয়ামীলীগকে তৃণমুলে বিস্তৃত করেছেন তিনি হলেন এড. মর্জিনা পারভীন। এই মহিলা সংগঠনই তার ধ্যান জ্ঞান। কারণ তিনি রাজশাহী জেলামহিলা লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনেও জড়িত রয়েছেন। এবার একাদশ জাতীয় সংসদ সদস্যের জন্য আওয়ামীলীগের মনোনয়নপত্র তুলেছেন রাজশাহীর রাজশাহী জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী এ্যাডভোকেট মর্জিনা পারভীন। এবার তিনি সংরক্ষিত আসনের এমপি হবেন তা খুবই আশাবাদী। কারণ মর্জিনা পারভীনের এই সংগঠনই সংসারের মতো। মর্জিনা পারভীনের বিয়ের কয়েক বছর পর প্রিয় স্বামীকে হারান। এরপর থেকেই সংগঠনের সাথেই ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে পড়েন তিনি। এছাড়া রাজনীতিক পরিবারের সন্তান হিসেবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে ছাত্রজীবন থেকে এখনও সংগ্রাম করে যাচ্ছেন তিনি।

জানা গেছে, চাপাইনবাবগঞ্জের আওয়ামীলীগের বর্ষীয়ান আওয়ামীলীগ নেতা এ্যাডভোকেট আফসার আলীর ছোট বোন এ্যাডভোকেট মর্জিনা পারভিন। তার পরিবার প্রত্যেক সদস্যই সক্রিয়ভাবে আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে জড়িত। এ্যাডভোকেট আফসার আলী ১৯৮৬ ও ১৯৯১ সালে নৌকার প্রার্থী হয়ে চাপাই নবাবগঞ্জ-২ এ আসনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন করেন।

তারই ছোট বোন মর্জিনা পারভিন ১৯৮৬-১৯৮৭ সালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রহনপুর ইউসুফ আলী কলেজের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮৫ সাল থেকে ১৯৯৪ ছাত্র রাজনীতে সক্রিয়ভাবে মাঠে ছিলেন এই নেত্রী। ১৯৯৫-২০১৯ সাল থেকে পর্যন্ত রাহশাহী জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও দুই দুইবারের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

২০০৯ সালে সংরক্ষিত আসনের চূড়ান্ত তালিকায় নাম থাকা সত্ত্বেও দলীয় বৃহৎ স্বার্থের কারণে আওয়ামীলীগ সভানেত্রী প্র্ধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ফজিলাতুল নেসা ইন্দিরা ও এ্যাডভোকেট মর্জিনা পারভিনকে না রেখে শরিকদলের অপর দুজনকে আসন দুটি ছেড়ে দেন।
পরবর্তিতে ফজিলাতুল নেসা ইন্দিরা সংরক্ষিত আসনে এম.পি করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে এবার মর্জিনা পারভিনের সেই কাঙিক্ষত সংসদ সদস্য হওয়ার প্রাপ্তির সম্ভাবনা অনেক বেড়ে গেছে।

রাজশাহীর জেলা আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা জানান, এ্যাডভোকেট মর্জিনা পারভিন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে নেত্রীর নির্দেশে জীবনের সবকিছু উজার করে রাজনীতিতে সময় দিয়ে চলেছেন। এ্যাডভোকেট মর্জিনা পারভিন সন্তান ও স্বামী হারা একজন নারী।তার জীবনের সবটুকুই সময় দিয়েই রাজনীতি করে যাচ্ছেন।

৩৫ বছরের বণার্ঢ্য রাজনৈতিক জীবনে ছাত্র রাজনীতি থেকে দুই বারের জেলা সভানেত্রী, একবার সাধারণ সম্পাদক, রাজশাহী জেলা মহিলা আওয়ামীলীগ ২২ বছর টানা রাজশাহী জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের দায়িত্ব পালন করে আসা এই নেত্রীকে এবার এলাকাবাসী সংরক্ষিত আসনে সংসদ সদস্য হিসেবে দেখতে চান।

এবিষয়ে এ্যাডভোকেট মর্জিনা পারভিন বলেন, আমাদের প্রাণের নেত্রীর চাওয়া এবং এলাকাবাসীর দোয়া থাকলেই একাদশ জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত আসনে মহিলা সংসদ সদস্য হতে পারব বলে বিশ্বাস করি।

খবরটি শেয়ার করুন...
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Print this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি