রাজশাহীতে ভাইকে বেঁধে রেখে কিশোরীকে ধর্ষণ করলো বখাটেরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী নগরীতে ছোট ভাইকে বেঁধে রেখে তার কিশোরী (১৩) বোনকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। পাঁচ বখাটে এই ধর্ষণ করে বলে ওই কিশোরী থানায় জানিয়েছে। নগরীর শিরোইল কলোনির কানারমোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় নগরীর চন্দ্রিমা থানা পুলিশ তিন যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো কানারমোড় এলাকার মৃত শাহিন ইকবালের ছেলে জাফর আলী (৩০), রবিন্দ্র দাশের ছেলে সাগর দাশ (২৬) ও জাহিদ হাসানের ছেলে রনি আহমেদ (২৩)। ওই কিশোরী বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছে। সোমবার দুপুরে আসামিদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, শনিবার দিবাগত রাত ভোর ৪টার দিকে জাফর কয়েকজনকে সাথে নিয়ে রাজশাহী রেল স্টেশনে বসে থাকা ওই কিশোরীকে কানারমোড় এলাকায় তার বাড়িতে কাজ দেয়ার কথা বলে কৌশলে তুলে নিয়ে যায়। এরপর ওই কিশোরীর ছোট ভাইকে বেধে রাখে। তারপর ওই কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালিয়ে তারা ব্যর্থ হয়। এরপর জাফর কাঁচের বোতল দিয়ে মেয়েটির মাথাই ও পায়ে আঘাত করে। তাকে পাঁচজন মিলে একে একে ধর্ষণ করে ওই কিশোরীকে।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই কিশোরীর বাড়ি ময়মনসিংহ শহরের স্টেশনপাড়ায়। কাজের সন্ধানে সে ছোট ভাইকে সাথে নিয়ে রাজশাহী আসে। রাত অনেক হয়ে যাওয়ায় সে স্টেশনে আশ্রয় নেয়। কিন্তু সুযোগ বুঝে স্টেশন থেকে কাজ দেয়ার কথা বলে কৌশলে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে বখাটেরা।

চন্দ্রিমা থানার ওসি হুমায়ন কবির বলেন, মেয়েটিকে ধর্ষণ করা হয়েছে। রাজশাহী মেডিকেল (রামেক) হাসপাতালে তার পরীক্ষা করা হয়েছে। মামলার তিনজন আসামিকে রোববার দিবাগত রাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। আর ওই কিশোরী ও তার ভাইকে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়েছে। পরিবারের সদস্যদের বিষয়টি জানানো হয়েছে।

খবরটি শেয়ার করুন...
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Print this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি