মঙ্গলে হেলিকপ্টার পাঠাবে নাসা

লালগ্রহ মঙ্গলে এবার উড়বে হেলিকপ্টার। এই ধরণের ঘোষণা দিয়ে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা জানাচ্ছে, ‘পৃথিবীতে যে উচ্চতা পর্যন্ত হেলিকপ্টার উঠতে পারে, মঙ্গলে তার থেকে আড়াই গুণ বেশি উচ্চতায় উড়তে পারবে সেটি। যার নাম দেয়া হয়েছে, ‘মার্সকপ্টার’।

পাসাডেনায় নাসার জেট প্রোপালশন ল্যাবরেটরি থেকে জানানো হয়েছে, ওই হেলিকপ্টার (উপগ্রহ প্রযুক্তির পরিভাষায় যাকে বলা হয়, ‘রোটরক্র্যাফ্ট’) মঙ্গলের উদ্দেশে রওনা হবে আর দু’বছর পর, ২০২০ সালে।  ২০৩০ সালের মধ্যে মঙ্গলে মানুষ পাঠানোর আগে সব কিছু পরীক্ষা করে দেখতে ২০২০ সালেই যে রোভার মহাকাশযান পাঠাচ্ছে নাসা, তার ভিতরে পুরেই লাল গ্রহে পাঠানো হবে সেই হেলিকপ্টার বা ‘মার্সকপ্টার’।
মার্স হেলিকপ্টার প্রজেক্টের অন্যতম প্রধান এক গবেষক বলছেন, ‘এর আগে কখনো অন্য কোনো গ্রহে হেলিকপ্টার পাঠানো হয়নি। পৃথিবীর তুলনায় মঙ্গলে বায়ুমণ্ডল প্রায় নেই বললেই চলে। তাই মঙ্গলের আকাশে হেলিকপ্টার তোলা ও চালানোর কাজটা বেশ কঠিন। ২০১৩ সাল থেকেই ওই প্রযুক্তি নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো হচ্ছিল। এবার এক মাস ধরে হেলিকপ্টারটির ‘ট্রায়াল’ হবে পৃথিবীতে।’
প্রকল্পের প্রজেক্ট ম্যানেজার মিমি আউং জানিয়েছেন, ‘রোভার, ল্যান্ডার ও কক্ষপথে ঘোরা অরবিটারগুলি দিয়ে লাল গ্রহের পাহাড়গুলির আড়ালে লুকিয়ে থাকা এলাকাগুলির হদিশ পেতে বা সেই এলাকাগুলির চেহারা-চরিত্র বুঝতে আমাদের অসুবিধা হচ্ছে। মার্সকপ্টার সেই সমস্যা মেটাবে।’ এবিসি নিউজ।
খবরটি শেয়ার করুন...
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Print this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি