নারীরা সকল প্রতিবন্ধকতা উপেক্ষা করে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে : আদিবা আনজুম মিতা এম.পি

তথ্য বিবরণী :
বেগম আদিবা আনজুম মিতা এম.পি বলেছেন, নারীরা সকল প্রতিবন্ধকতা উপেক্ষা করে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এর পথ তৈরি করে গিয়েছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। যিনি আমাদের স্বাধীনতা দিয়েছেন এবং সমাজের সকল স্তরে নারীদেরকে প্রতিষ্ঠার সুযোগ করে দিয়েছেন। আজ সকাল সাড়ে ১০টায় রাজশাহী মানবসম্পদ উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে নারীর ক্ষমতায়নে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণ মানুষের কাছে সংবিধান হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়েছিল । তাঁর এ ভাষণের মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণা এসেছিল যার ফলে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি এবং নারীরা এম. পি, সচিব, ডিআইজি, ডিসি, এসপি হতে পেরেছে। বর্তমানে প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার ও বিরোধীদলীয় নেত্রী সবাই নারী। আজকে এই বাংলাদেশ পাকিস্তান থাকলে নারীরা এতদূর এগিয়ে যেতে পারতো না।
তিনি আরও বলেন, আজকে নারীর উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভিন্ন ধরণের ভাতা প্রদানের ব্যবন্থা করছেন, নারীরা উপকৃত হচ্ছে এবং সমাজে নিজেদের প্রতিষ্ঠা করতে পারছে। সমাজের বিভিন্ন কর্মকান্ডে নারীদের অংশগ্রহণ দেখলে তা সহজেই বুঝা যায়। নারীরা নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করতে পারছে। এখন এটা অনেকেই স্বীকার করে যে, নারীরা কর্মক্ষেত্রে পুরুষের চেয়ে বেশি সৎভাবে কাজ করছে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি বেগম শাহীন আকতার রেনী বলেন, বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়ন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আজকে আমাদের পাশর্^বর্তী দেশগুলো আমাদের দিকে অবাক বিস্ময়ে তাকায়। এর জন্য কৃতিত্বের দাবিদার হলো একজন মহীয়সী নারী, তিনি হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নারীর ক্ষমতায়নের জন্য নারীদের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অংশগ্রহণের সুযোগ তৈরি করে দিয়েছিলেন। আজকে তার প্রতিফলন দেখা যাচ্ছে। আজকে বাংলাদেশের নারী নাসার মত জায়গায় কাজ করছে, ফুটবলের কোচ হচ্ছে, সচিব, উপসচিব, ডিআইজি, এসপি হচ্ছে, সমুদ্র বিজয় করছে, পর্বতের চূড়ায় আরোহণ করছে। এটি আমাদের দেশের জন্য অত্যন্ত গর্বের বিষয়।
স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর রাজশাহীর উপপরিচালক পারভেজ রায়হানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর রাজশাহীর উপপরিচালক শবনম শিরিন, জাতীয় মহিলা সংস্থা রাজশাহীর উপপরিচালক বেগম মর্জিনা পারভীন, সমাজসেবা অধিদপ্তর রাজশাহীর উপপরিচালক হাসিনা মমতাজ, রাজশাহী জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সহ-সভাপতি বক্তৃতা করেন।

খবরটি শেয়ার করুন...
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Print this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি